শিরোনাম
প্রচ্ছদ / ইতালি / ইতালিয়ান তরুণীকে গণধর্ষণ থেকে বাঁচিয়ে প্রশংসায় সিক্ত প্রবাসী আলমগীর

ইতালিয়ান তরুণীকে গণধর্ষণ থেকে বাঁচিয়ে প্রশংসায় সিক্ত প্রবাসী আলমগীর

ইতালির ফ্লোরেন্সে সম্প্রতি এক তরুণীকে গণ ধর্ষণ থেকে বাঁচিয়ে প্রশংসায় ভাসছেন বাংলাদেশি আলমগীর হোসেন। বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় একাধিক গণমাধ্যম এ খবর বেশ গুরুত্ব দিয়ে প্রচার করেছে।

জানা গেছে আলমগীর অনেকটা ফিল্মি ষ্টাইলে সাহসিকতা দেখিয়ে মাতাল ছেলেদের হাত থেকে ২৫ বছরের তরুণী গায়ানি গানিজিকে গণ ধর্ষণ থেকে রক্ষা করেন। স্থানীয় সময় আনুমানিক রাত সাড়ে ১১ টায় ফ্লোরেন্স সেন্টার চত্বরে এ ঘটনা ঘটে।

৫৮ বছর বয়সী আলমগীর জাগো নিউজকে জানান, তিনি প্রতিদিনের মত ফুলের ব্যবসা করতে সেন্টারে যান। সেখানে তরুণীকে কাদঁতে দেখে কারণ জিজ্ঞাসা করতেই মেয়েটি জানায় বন্ধুর জন্য সে অপেক্ষা করছে। কিছুক্ষণ পরে তিনি ঘুরে এসে দেখতে পান ২৫ জনের একটা গ্রুপ ওই তরুণীকে উত্ত্যক্তসহ শ্লীলতাহানির চেষ্টা করছে।

তিনি বলেন, তখন তরুণীটিকে বখাটেদের হাত থেকে বাচাঁতে একাই এগিয়ে যান। তাদের সঙ্গে হাতাহাতি, ধাক্কাধাক্কি ও ধস্তাধস্তি হয়। এক পর্যায়ে তারা চলে যেতে বাধ্য হয়। পরে তরুণী তার একটি ছবি নিয়ে যান।

তিনি আরও বলেন, মেয়েটি এ ঘটনা ফেসবুকে দেয়ার সঙ্গে সঙ্গে তা ভাইরাল হয়ে যায়। এরপরই বিভিন্ন গণমাধ্যমে এ নিয়ে সংবাদ প্রচার হতে থাকে। তারা ফোন করে ঘটনার বিশদ জানতে চায়। স্থানীয় টেলিভিশন চ্যানেলে অনেকবার সাক্ষাৎকার দিতে হয়েছে।

আলমগীর জানান, এ ঘটনার পর ফ্লোরেন্সের যেখানেই যাই লোকে আমাকে সম্মান দেখায়। আমি মনে করি এ সম্মান আমার একার নয়, সমগ্র বাঙালি জাতির। এর ফলে বিশ্বে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল হয়েছে।

আলমগীর হোসনের বাড়ি নোয়াখালির বেগমগঞ্জ। তিন সন্তানের মধ্যে বড় মেয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে, ছেলে কলেজে এবং ছোট মেয়ে স্কুলে পড়ে।

প্রবাসীদের সকল ভিডিও খবর ইউটিউবে দেখতে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটি: