শিরোনাম
প্রচ্ছদ / বাংলাদেশ / পথে বাঁধা সত্ত্বেও লোকে লোকারণ্য সিলেটে এক্যফ্রন্টের সমাবেশ!

পথে বাঁধা সত্ত্বেও লোকে লোকারণ্য সিলেটে এক্যফ্রন্টের সমাবেশ!

সংসদ ভেঙে, খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিয়ে ‘নিরপেক্ষ’ সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবি আদায়ে সিলেটে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের জনসভা শুরু হয়েছে। নগরীর রেজিস্ট্রি মাঠে বুধবার বেলা ২টার দিকে কোরআন তেলাওয়াত ও গীতা পাঠের মধ্য দিয়ে এ সভার কর্যক্রম শুরু হয়।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের এই জনসভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত আছেন ড. কামাল হোসেন। আর বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এ জনসভার প্রধান বক্তা। বিএনপিকে সাথে নিয়ে গত ১৩ অক্টোবর জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট গঠন করেন কামাল হোসেন। এই জোটে বিএনপি ও গণফোরামের সাথে আছে জেএসডি ও নাগরিক ঐক্য। সাত দফা দাবিতে জনমত গঠনে এটাই তাদের প্রথম রাজনৈতিক কর্মসূচি।

বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য সিলেটের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর সভাপতিত্বে এ জনসভার প্রথম বক্তা ছিলেন জেলা সভাপতি আবু কাহের চৌধুরী শামীম।

বিএনপি নেতাদের মধ্যে খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মওদুদ আহমদ, বরকতউল্লাহ বুলু, মোহাম্মদ শাহজাহান, শামসুজ্জামান দুদু, এজেডএম জাহিদ হোসেন, মনিরুল হক চৌধুরী, হাবিবুর রহমান হাবিব, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডির আসম আবদুর রব, আবদুল মালেক রতন, নাগরিক ঐক্যের মাহমুদুর রহমান মান্না, গণফোরামের মোস্তফা মহসিন মন্টু, জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার সুলতান মোঃ মনসুর ও মোস্তফা মহসিন মন্টু উপস্থিত রয়েছেন এ জনসভায়।

যে মাঠে এই জনসভা হচ্ছে, সেখানে খুব বেশি মানুষের জড়ো হওয়ার জায়গা নেই। ১৭টি শর্তে ফ্রন্টকে এখানে সমাবেশ করার অনুমতি দিয়েছে পুলিশ। মাঠে জায়গা না পেয়ে নেতাকর্মীদের ভিড় পৌঁছেছে রাস্তায়। তাতে আশপাশের এলাকায় তৈরি হয়েছে যানজট।

জনসভা মঞ্চের ব্যানারে অবাধ, সুষ্ঠু, গ্রহণযোগ্য নির্বাচন; খালেদা জিয়াসহ সকল রাজবন্দির নিঃশর্ত মুক্তিসহ ৭ দফা দাবির কথা লেখা আছে।মঞ্চের পশ্চিম দিকে রেজিস্ট্রি ভবনে টানানো হয়েছে খালেদা জিয়ার মুক্তি ও তারেক রহমানের রায় বাতিলের দাবি সম্বলিত ডিজিটাল ব্যানারক চোখে পড়েছে।এছাড়া শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান, ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন, সিলেটের নিখোঁজ বিএনপি নেতা এম ইলিয়াস আলীর ছবি সম্বলিত ব্যানারও দেখা গেছে। এ সমাবেশ ঘিরে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সড়ক থেকে শুরু করে বিভিন্ন স্থানে বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

নতুন এই জোটের নেতা কামাল হোসেন বলেছেন, নির্বাচনে প্রার্থী হওয়া কিংবা রাষ্ট্রীয় কোনো পদ পাওয়ার ইচ্ছা তার নেই। ‘গণতান্ত্রিক, ধর্মনিরপেক্ষ ও বহুমাত্রিক সমাজ’ প্রতিষ্ঠার জন্য কাজ করে যাওয়াই তার লক্ষ্য। বিএনপির সাথে জোট করলেও জামায়াতে ইসলামী ও তারেক রহমানের সাথে ঐক্যফ্রন্টের কোনো সম্পর্ক নেই বলেও দাবি করেছেন কামাল।

প্রবাসীদের সকল ভিডিও খবর ইউটিউবে দেখতে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটি: