শিরোনাম
প্রচ্ছদ / প্রবাস / প্রেমিকা সেজে প্রবাসী যুবককে রেস্তোরাঁয় নিয়ে যা দেখাল গৃহবধূ সাথী।

প্রেমিকা সেজে প্রবাসী যুবককে রেস্তোরাঁয় নিয়ে যা দেখাল গৃহবধূ সাথী।

কুমিল্লার দাউদকান্দিতে প্রবাসী যুবককে মোবাইলের মাধ্যমে প্রেমের ফাঁদে ফেলে অপহরণের পর নির্যাতন চালিয়ে দুই লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবির অভিযোগে এক গৃহবধূসহ ওই চক্রের ৬ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে দাউদকান্দি মডেল থানার পুলিশ। মঙ্গলবার (১৩ মার্চ) রাত ১২টায় কুমিল্লার দাউদকান্দি মডেল থানার গৌরীপুর পুলিশ ফাঁড়ির সদস্যরা এ অভিযান চালায়। বুধবার গ্রেফতারকৃতদের আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, “মুরাদনগর উপজেলার পুনিয়াটন গ্রামের নবীর হোসেনের স্ত্রী দিয়ানা আক্তার সাথী (২২) মঙ্গলবার জেলার সদর দক্ষিণ উপজেলার দীঘলগাঁও গ্রামের মোখলেছুর রহমানের ছেলে দুবাই প্রবাসী ইসমাইলকে গৌরীপুর পাতাতা রেস্তোরাঁয় আমন্ত্রণ জানান।

এই ঘটনার দুইদিন আগে মোবাইল ফোনে তাদের আলাপ ও পরিচয় হয়। ঘটনার দিন ইসমাইল তার বন্ধু রবিউল হোসেনকে (২২) সঙ্গে নিয়ে রেস্তোরাঁয় যান। তাদের দু’জনকে পাতাতা রেস্তোরাঁয় নেয়ার পর পূর্বপরিকল্পনা অনুযায়ী সাথী ও নবীর হোসেনের সহযোগী মো. নাজমুল হক নাদিম (১৯), আতিকুর রহমান শাওন (১৯), তাহমিদুল আলম নিয়াজ (১৯) এবং পাতাতা রেস্তোরাঁর ম্যানেজার আবুল কালামসহ (৩৫) আরো কয়েকজন কৌশলে ওই রেস্তোরাঁয় আটকে রেখে মারপিট এবং দুই লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে।”

এক পর্যায়ে প্রতারিত ওই দুই যুবক তাদের বন্ধু শাকিলকে টাকা এনে তাদের মুক্ত করার অনুরোধ করলে শাকিল পুলিশের সাহায্য চান। পরে গৌরীপুর তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ মঙ্গলবার রাতে পাতাতা রেস্তোরাঁ থেকে ওই দুই যুবককে উদ্ধার করে। এ সময় ঘটনার সঙ্গে জড়িত ৬ জনকে গ্রেফতার করা হয়।

গৌরীপুর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এএসএম আব্দুন নুর এ বিষয়ে বলেন, “খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক ওই রেস্তোরাঁয় অভিযান চালিয়ে দুই যুবককে উদ্ধার এবং এরসঙ্গে জড়িত তরুণী ও রেস্তোরাঁর ম্যানেজারসহ ৬ জনকে গ্রেফতার করা হয়।”

প্রবাসীদের সকল ভিডিও খবর ইউটিউবে দেখতে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটি: