শিরোনাম
প্রচ্ছদ / ভিডিও / মালয়েশিয়ায় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে প্রবাসীরা: ৩০৬ জন বাংলাদেশিসহ আটক ৫১৬ জন (অপারেসির ভিডিওসহ)।

মালয়েশিয়ায় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে প্রবাসীরা: ৩০৬ জন বাংলাদেশিসহ আটক ৫১৬ জন (অপারেসির ভিডিওসহ)।

মালয়েশিয়ায় অবৈধ বিদেশী শ্রমিকেরা পালানোর চেষ্টা করে এবং ইমিগ্রেশন কর্মকর্তারা তাদের ধরে মারধর করে। মালয়েশিয়া ইমিগ্রেশন মহাপরিচালক দাতুক সেরি মুস্তাফার আলী নিজে উপস্থিত থেকে অপস মেগা ৩.০ অভিযান পরিচালনা করেন।

১৩ জুলাই মদ্ধরাতে মালয়েশিয়ার ৩ টি লোকেশন কেপং, সেলায়াং এবং বুকিত জলিলে অপস মেগা ৩.০ অভিযান চালায় ১৫০ জন মালয়েশিয়ান ইমিগ্রেশন পুলিশ। ভোররাতে ইমিগ্রেশন পুলিশ যখন অভিযান চালায় নাইজেরিয়ান অবৈধ শ্রমিকেরা পালানোর চেষ্টা করে সে সময় তাদের ধরতে গিয়ে ইমিগ্রেশন পুলিশ এবং অবৈধ নাইজেরিয়ান নাগরিক উভয়ই আহত হন।

কুয়ালা লামপুরের কেপঙের একটি এপার্টমেন্ট এবং বুকিত জলিলের একটু কনস্ট্রাশন সাইটে অভিযান চালায় মালয়েশিয়ান ইমিগ্রেশন পুলিশ।

ইমিগ্রেশন মহাপরিচালক বলেন, বুকিত জলিল অপারেসির সময় আমরা লক্ষ্য করি, অবৈধ শ্রমিকেরা বিভিন্নভাবে পালানোর চেষ্টা করে। তারা দেয়ালের পাশে এবং সোফার নিচে পালিয়ে থাকার চেষ্টা করে। কিন্তু তারা তাদের শরীর দেয়ালের পাশে এবং সোফার নিচে লুকিয়ে রাখতে ব্যার্থ হয় আমরা তাদের দেখে ফেলি তারপরে সেখানে থেকে বের করে আটক করি সংবাদ সম্মেলনে বলেন মুস্তাফার আলী।

সেলায়াং অভিযানে ৪৬৮ অবৈধ শ্রমিকের বৈধ পার্মিট চেক করে ২৫৮ জনকে আটক করা হয়। এছাড়াও ১৮৫ জন শ্রমিকের বৈধ ভিসা চেক করে ৬৮ জনকে আটক করা হয়। তাদের মধ্যে ৪০ জন ইন্দোনেশিয়ান ছাড়া বাকি সবাই বাংলাদেশী নাগরিক।

এবং কেপং-এ ৩০ জন বিদেশিকে চেক করে ৪ জন ইন্দোনেশিয়ান, ৪ জন নাইজেরিয়ান এবং ১ জন ফিলিপিনের নাগরিককে আটক করে ইমিগ্রেশন পুলিশ।

বুকিত জলিল অভিযানে ২৫৩ জন বিদেশির বৈধ পার্মিট চেক করে ১৮১ জনকে আটক করেছে ইমিগ্রেশন বিভাগ। তাদের মধ্যে ১৪০ জন ইন্দোনেশিয়ান, ২১ জন মায়ানমার এবং ২০ জন বাংলাদেশী নাগরিক। আটক সবাইকে ইমিগ্রেশন বিভাগে নিয়ে যাওয়া হয়েছে পরবর্তী পদক্ষের জন্যে।

আটক অবৈধ শ্রমিকদের বেশির ভাগেরই পাসপোর্টের মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে।

প্রবাসীদের সকল ভিডিও খবর ইউটিউবে দেখতে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটি: