শিরোনাম
প্রচ্ছদ / মালয়েশিয়া / মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশী শ্রমিক পাঠাতে যে খরচ, দালালদের থেকে বেশি যেত মালয়েশিয়ান রাজনীতিবিদদের পকেটে! বিস্তারিত…

মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশী শ্রমিক পাঠাতে যে খরচ, দালালদের থেকে বেশি যেত মালয়েশিয়ান রাজনীতিবিদদের পকেটে! বিস্তারিত…

বাংলাদেশী সংবাদপত্র ডেইলি ষ্টার প্রকাশ করেছে যে, পূর্ববর্তী মালয়েশিয়ার সরকার বাংলাদেশী জনশক্তি রপ্তানির জন্য একটি সিন্ডিকেট তৈরি করেছিল এবং মালয়েশিয়ার তৈরী সেই সিন্ডিকেট একচেটিয়া বাংলাদেশী শ্রমিক নিয়োগ দিয়েছে। এই সিন্ডিকেটের মাদ্ধমে ২০১৭ সাল থেকে বাংলাদেশী শ্রমিকদের থেকে লক্ষ লক্ষ রিঙ্গিত হাতিয়ে নিয়েছে।

বাংলাদেশী শ্রমিকদের থেকে হাতিয়ে নেয়া অর্থের অর্ধেকটা নিয়েছে বড় বড় রাজনৈতিক ব্যক্তি।

মালয়েশিয়ায় কর্মী পাঠাতে প্রতিটা শ্রমিকের এপ্লিকেশন এপ্রোভের জন্যে এজেন্টদের মালয়েশিয়া স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাকে ঘুষ দিতে হয়েছে। প্রতিটা শ্রমিকের জন্যে এভারেজ ১ হাজার ৫০০ রিংগিত ঘুষ দিতে হতো।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় সাড়াও, মানবসম্পদ মন্ত্রণালয়কেও ঘুষ দিতে হতো মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশী শ্রমিক নিয়োগের জন্যে। মানবসম্পদ মন্ত্রণালয় এভারেজ ১ হাজার রিংগিত ঘুষ নিতো এবং এজেন্ট ও সাব-এজেন্টদের গড়ে ২,৫০০ রিংগিত করে কমিশন থাকতো। এই সকল ঘুষের কোনো ডকুমেন্ট থাকতো না।

বাংলাদেশী শ্রমিকেরা প্রত্যেকে ভিসার জন্যে ৯ হাজার রিংগিত করে এজেন্টদের দিতো সেটা থেকে ৫ হাজার রিংগিত এজেন্টরা মালয়েশিয়ান দাতুক শ্রীদের ঘুষ দিতো। এবং দাতুক সেরিরা সেই অর্থ বড় বড় রাজনীতিবিদদের সাথে ভাগ বাটোয়ারা করতো।

মালয়েশিয়া সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ে ৫ হাজার রিংগিত পাঠানোর পর বাকি যে রিংগিত থাকতো সেটা এজেন্টরা ভিসা প্রসেসিংয়ের কাজ করতো এবং নিজেরা কমিশন নিতো বলে উল্লেখ করেন বাংলাদেশী ডেইলি ষ্টার নিউজ পেপার।

প্রবাসীদের সকল ভিডিও খবর ইউটিউবে দেখতে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটি: