শিরোনাম
প্রচ্ছদ / মালয়েশিয়া / মালয়েশিয়া ইমিগ্রেশন পুলিশের অভিযানে বাংলাদেশিসহ ৪ শতাধিক অবৈধ প্রবাসী আটক (অপারেসির ভিডিওসহ)!

মালয়েশিয়া ইমিগ্রেশন পুলিশের অভিযানে বাংলাদেশিসহ ৪ শতাধিক অবৈধ প্রবাসী আটক (অপারেসির ভিডিওসহ)!

অবৈধ অভিবাসীদের বিরুদ্ধে মালয়েশিয়ার চলমান অভিযানে গত সাতদিনে বাংলাদেশিসহ ৪ শতাধিক অভিবাসীকে আটক করা হয়েছে। বৈধ কাগজপত্র না থাকা কিংবা দেশটিতে বিভিন্ন অবৈধ কাজে যুক্ত থাকার অভিযোগে তাদের আটক করে ইমিগ্রেশন বিভাগ। তবে আটকের মধ্যে বাংলাদেশি কতজন আছে এখনো জানা যায়নি।

মালয়েশিয়ার সংবাদমাধ্যম দ্য স্টার ডট কমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দেশটির অভিবাসন বিভাগ শুধুমাত্র অবৈধদের আটক করছে। ২১ সেপ্টেম্বর মোট ৩৩৮ জন বিদেশি শ্রমিককে আটক করা হয়। অভিবাসন বিভাগের মহাপরিচালক মুসতাফার আলি জানিয়েছেন, আটক শ্রমিকদের মধ্যে ৫৫ জন বাংলাদেশি পুরুষ রয়েছেন।

এছাড়া ইন্দোনেশিয়ার ৩৬ জন পুরুষ ও ১৭২ জন নারী শ্রমিককে আটক করা হয়েছে। অভিযানে আটক হয়েছে মিয়ানমারের ২৫ জন পুরুষ ও তিনজন নারী শ্রমিক। এছাড়া ৪৭ জন নেপালি পুরুষ শ্রমিককেও আটক করা হয়েছে।

মালয়েশিয়ার অভিবাসন বিভাগ জানিয়েছে, আটক শ্রমিকদের কাজ করার উপযুক্ত বৈধতা ছিল না। দাতুক সেরি মুসতাফার আলি বলেন, ‘আমরা প্রায় ২ হাজার ২৩০ জনের কাগজপত্র পরীক্ষা-নিরীক্ষা করেছি। পরে ৩৩৮ জনকে আটক করা হয়। তাদের বেশির ভাগই বিদেশি শ্রমিক হিসেবে অস্থায়ীভাবে কাজ করার অনুমতি নিয়ে বিভিন্ন কোম্পানির হয়ে কাজ চালিয়ে যাচ্ছিল।’

এছাড়া গত তিনদিনে (২২ সেপ্টেম্বর ৫৫ জন), দেশটির সেগামবাতে একটি নির্মাণ সাইটে অভিযান চালিয়ে মোট ১৭৭ জন অবৈধ অভিবাসীকে আটক করা হয়, যার মধ্যে ১৪৫ জনই বাংলাদেশি।

দেশটির ফেডারেল টেরিটরিজ ইমেগ্রেশন ডিপার্টমেন্ট, ফেডারেল টেরিটরিজ কন্সট্রাকশন ইনডাস্ট্রি ডেভলপমেন্ট বোর্ড এবং মেম্বার অব দ্যা পিপলস ভলান্টিয়ার কোর্পস যৌথভাবে এই অভিযান পরিচালনা করে।

কুয়ালালামপুর ইমিগ্রেশনের পরিচালক হামিদি আদম বলেন, ‘এই অভিযানে মোট ১৪৫ জন বাংলাদেশি ও ২৯ জন ইন্দোনেশিয়ান নাগরিক আটক হয়েছেন। এছাড়াও এই অভিযানে দুই মিয়ানমার নাগরিক ও একজন ভারতীয় নাগরিক আটক হয়েছেন। অভিযানে মোট ৩২০ জন শ্রমিকের তথ্য উপাত্ত যাচাই করা হয়েছে।’

৩০ জুন পুনর্বাসন কর্মসূচি শেষ হওয়ার পর মালয়েশিয়া অনিয়মিত অভিবাসীদের ওপর অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে ইমিগ্রেশন বিভাগ।

আটকের বিষয়ে জানতে চাইলে ইমিগ্রেশন বিভাগের মহাপরিচালক মুস্তাফার আলী বলেন, অভিযান অব্যাহত থাকবে। ১৪ সেপ্টেম্বর মালয়েশিয়ার রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা বার্নামার প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, আটক বাংলাদেশিদের সঠিক সংখ্যা নিশ্চিত করা যায়নি। তবে জানুয়ারি থেকে ৩০ হাজার বিদেশি কর্মীকে আটক করা হয়েছে। এর মধ্যে ৬ হাজার বাংলাদেশি।

বর্তমানে, প্রায় ১০ লাখ বাংলাদেশি দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার এ দেশটি রয়েছেন। তাদের মধ্যে, প্রায় অর্ধেক অভিবাসী। তাদের অধিকাংশই কাজের অবস্থা নিয়মিতকরণের জন্য প্রযোজ্য এবং প্রক্রিয়াগুলোর জন্য ৬ থেকে ১০ হাজার রিংগিট ব্যয় করেন। তবে প্রায় ৮০ শতাংশ এখনও পারমিট না পাওয়ায় অনিশ্চয়তা ও আতঙ্কে দিন পার করছেন।

প্রবাসীদের সকল ভিডিও খবর ইউটিউবে দেখতে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটি: