শিরোনাম
প্রচ্ছদ / সিঙ্গাপুর / সিঙ্গাপুরে যৌনহয়রানির দায়ে অবৈধ বাংলাদেশীর জেল

সিঙ্গাপুরে যৌনহয়রানির দায়ে অবৈধ বাংলাদেশীর জেল

সিঙ্গাপুরে এক নারীকে যৌন নিপীড়নের দায়ে মাসুদ রানা (৩৬) নামে এক বাংলাদেশিকে পাঁচ মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন দেশটির আদালত। জানা গেছে, তিনি অবৈধভাবে দেশটিতে অবস্থান করছিলেন।

গত শুক্রবার সিঙ্গাপুরের একটি জেলা আদালত তার বিরুদ্ধে রায় ঘোষণার ক্ষেত্রে ‘ওয়ার্ক পারমিট’ শেষ হওয়ার পর দেশটিতে ১৩ দিন অবস্থান এবং একটি ভুয়া নথি (স্পেশাল পাস) ব্যবহারের বিষয়টি বিবেচনায় নেওয়া হয়েছে বলে সিঙ্গাপুরের সংবাদ মাধ্যম দ্য স্ট্রেইটসটাইমস এর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

তার বিরুদ্ধে মামলায় বলা হয়, গত ৮ জুলাই ভোর সাড়ে ৫টার দিকে ২৯ বছরের ওই নারী তার ছেলে বন্ধুর জন্য অপেক্ষা করছিলেন। টয়লেট করতে যাওয়া বন্ধুর জন্য অপেক্ষার এক পর্যায়ে পিছনে কারও হাত টের পান। ঘুরে দেখেন মাসুদ তার শরীরে হাত দিয়েছেন। এ সময় গায়ে হাত দিলেন কেন-প্রশ্নের জবাবে বলা হয়, “হোটেল? ১০০ ডলার, ২০০ ডলার?”

এ ঘটনার সময় পাশ দিয়ে যাওয়া এক ব্যক্তি এটি দেখে মাসুদের দিকে চিৎকার করে কী হয়েছে জানতে চাইলে তিনি পালাতে উদ্যত হন। ওই নারী তাকে ধরার চেষ্টা করে ব্যর্থ হন।

এর প্রায় দুই ঘণ্টা পর বন্ধুকে নিয়ে ওই এলাকা ত্যাগের সময় মাসুদ সেখান দিয়ে হেঁটে যেতে দেখেন ওই নারী। এ সময় দৌঁড়ে পালানোর চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন মাসুদ। ওই নারী ও তার বন্ধু তাকে পাকড়াও করে। এ সময় এক পথচারী পুলিশে ফোন দেন।

কিছুক্ষণের মধ্যে পুলিশ এসে কাগজপত্র দেখতে চাইলে মাসুদ একটি ভুয়া স্পেশাল পাশ দেখান, যাতে ২৬ জুন থেকে ১১ জুলাই পর্যস্ত সিঙ্গাপুরে তার অবস্থানের অনুমতির কথা লেখা।

তবে পরে ইমিগ্রেশন ও চেকপয়েন্টস কর্তৃপক্ষে খোঁজ নিয়ে দেখা যায়, গত ২৫ জুন তার কাজের অনুমোদন বাতিল হয়ে গেছে এবং তারপর থেকে তিনি অবৈধভাবে সিঙ্গাপুরে আছেন।

জিজ্ঞাসাবাদে মাসুদ স্বীকার করেন ২৮ জুন ‘রমেশ’ নামের এক বন্ধুর কাছ থেকে ৫০০ ডলার দিয়ে ভুয়া স্পেশাল পাশ সংগ্রহ করেন তিনি।

সিঙ্গাপুরে যৌনহয়রানির দায়ে অবৈধ বাংলাদেশীর জেল

প্রবাসীদের সকল ভিডিও খবর ইউটিউবে দেখতে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটি: